1. editorstv24bd@gmail.com : editor : news editor
  2. newsstv24bd@gmail.com : Alamin :
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৭:২৭ পূর্বাহ্ন

বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দা মোকাবিলায় বিশ্বনেতাদের একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইমঃ শুক্রবার, ২০ মার্চ, ২০২০
  • ১৬২ ১১৯বার পড়া হয়েছে

করোনাভাইরাসের কারণে খুব শিগগিরই বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দায় পড়তে যাচ্ছে বিশ্ব। যা পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে দেবে। এমনটি আশঙ্কা করছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। বৃহস্পতিবার এক ভিডিও কনফারেন্সে সাংবাদিকদের কাছে এমন আশঙ্কার কথা বলেন আন্তোনিও গুতেরেস। তিনি হুঁশিয়ার করে বলেন, করোনাভাইরাস মহামারি ঠেকাতে দেশগুলো যে পদক্ষেপ নিচ্ছে তাতে পরিস্থিতির জটিলতা সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না হয়তো। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য দেওয়া হয়েছে।

সেসময় তিনি পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশ্বনেতাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। ছবি: রয়টার্সকরোনাভাইরাসের কারণে খুব শিগগিরই বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দায় পড়তে যাচ্ছে বিশ্ব। যা পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে দেবে। এমনটি আশঙ্কা করছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। বৃহস্পতিবার এক ভিডিও কনফারেন্সে সাংবাদিকদের কাছে এমন আশঙ্কার কথা বলেন আন্তোনিও গুতেরেস। তিনি হুঁশিয়ার করে বলেন, করোনাভাইরাস মহামারি ঠেকাতে দেশগুলো যে পদক্ষেপ নিচ্ছে তাতে পরিস্থিতির জটিলতা সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না হয়তো। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য দেওয়া হয়েছে।

সেসময় তিনি পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশ্বনেতাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। ছবি: রয়টার্সকরোনাভাইরাসের কারণে খুব শিগগিরই বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দায় পড়তে যাচ্ছে বিশ্ব। যা পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে দেবে। এমনটি আশঙ্কা করছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। বৃহস্পতিবার এক ভিডিও কনফারেন্সে সাংবাদিকদের কাছে এমন আশঙ্কার কথা বলেন আন্তোনিও গুতেরেস। তিনি হুঁশিয়ার করে বলেন, করোনাভাইরাস মহামারি ঠেকাতে দেশগুলো যে পদক্ষেপ নিচ্ছে তাতে পরিস্থিতির জটিলতা সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না হয়তো। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য দেওয়া হয়েছে।

সেসময় তিনি পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশ্বনেতাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, ‘এই অবস্থায় বিশ্ব অর্থনীতির নেতাদের সমন্বয় করে, মাথা ঠান্ডা রেখে এবং আরও উদ্ভাবনীমূলক কর্মপন্থায় কাজ করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা একটি জটিল পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছি। স্বাভাবিক নিয়মে এর থেকে বের হওয়া যাবে না।’
তিনি আরও বলেন, ‘নিকট ভবিষ্যতে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দা অপেক্ষা করছে। যা সম্ভবত অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দেবে।’ বিশ্বের ধনী দেশগুলো ইতিমধ্যেই পরিস্থিতি মোকাবিলায় তহবিল ঘোষণা করেছে।
চীন থেকে শুরু হলেও করোনাভাইরাসের কেন্দ্রস্থল এখন ইউরোপ। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ২ লাখ ১৯ হাজার মানুষ। আর মৃত্যু হয়েছে প্রায় ৮ হাজার ৯০০ জনের।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। ছবি: রয়টার্সকরোনাভাইরাসের কারণে খুব শিগগিরই বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দায় পড়তে যাচ্ছে বিশ্ব। যা পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে দেবে। এমনটি আশঙ্কা করছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। বৃহস্পতিবার এক ভিডিও কনফারেন্সে সাংবাদিকদের কাছে এমন আশঙ্কার কথা বলেন আন্তোনিও গুতেরেস। তিনি হুঁশিয়ার করে বলেন, করোনাভাইরাস মহামারি ঠেকাতে দেশগুলো যে পদক্ষেপ নিচ্ছে তাতে পরিস্থিতির জটিলতা সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না হয়তো। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য দেওয়া হয়েছে।

সেসময় তিনি পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশ্বনেতাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, ‘এই অবস্থায় বিশ্ব অর্থনীতির নেতাদের সমন্বয় করে, মাথা ঠান্ডা রেখে এবং আরও উদ্ভাবনীমূলক কর্মপন্থায় কাজ করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা একটি জটিল পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছি। স্বাভাবিক নিয়মে এর থেকে বের হওয়া যাবে না।’
তিনি আরও বলেন, ‘নিকট ভবিষ্যতে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দা অপেক্ষা করছে। যা সম্ভবত অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দেবে।’ বিশ্বের ধনী দেশগুলো ইতিমধ্যেই পরিস্থিতি মোকাবিলায় তহবিল ঘোষণা করেছে।
চীন থেকে শুরু হলেও করোনাভাইরাসের কেন্দ্রস্থল এখন ইউরোপ। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ২ লাখ ১৯ হাজার মানুষ। আর মৃত্যু হয়েছে প্রায় ৮ হাজার ৯০০ জনের।

বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, ‘বিশ্ব এখন অভিন্ন শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই করছে। আমরা এখন এক ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছি।’ তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বনেতাদের একসঙ্গে সমন্বয় করে পরিস্থিতি মোকাবিলার আহ্বান করছি।’

ব্যাংকগুলোকে তাদের গ্রাহকদের কথা বিবেচনা করার কথা বলেন আন্তোনিও গুতেরেস। তিনি বলেন, ‘জি-২০-এর নেতারা তাদের নাগরিকদের এবং অর্থনীতির সুরক্ষায় নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। তারা সাধারণ জনগণের ঋণে সুদের হার কমিয়ে দিয়েছে। আমাদের উচিত নাজুক দেশগুলোর প্রতিও একই পন্থা অবলম্বন করা। যাতে তাদের দেনার পরিমাণ কিছুটা কমে।’

ভাল লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

এই কেটাগরির আরো খবর
© All rights reserved 2021 Stv24bd
themesbazarstv24bd34